Tuesday, August 16, 2022
spot_img
Homeঅপরাধ দুর্ণীতিহাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে চেয়ারে বসে মিটিং করলেন নিপুণ

হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে চেয়ারে বসে মিটিং করলেন নিপুণ

হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে চেয়ারে বসে মিটিং করলেন নিপুণ

মারুফ সরকার ,বিনোদন প্রতিনিধি :

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে চিত্রনায়ক জায়েদ খান ও চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের আইনি লড়াই চলছে। দুই মাস হতে চললো নির্বাচন শেষ হয়েছে, এখনো পদটি নিয়ে জটিলতার অবসান ঘটেনি। চূড়ান্ত রায় না হওয়া পর্যন্ত কেউই সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসতে পারবেন না বলে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এদিকে, আদালতের নির্দেশ উপেক্ষা করে এরই মধ্যে বেশ কয়েকবার সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসেন ভোটে পরাজিত নিপুণ আক্তার। এমন অবস্থায় আদালত অবমাননার অভিযোগ করেছিলেন ভোটে বিজয়ী চিত্রনায়ক জায়েদ খান। তারই পরিপ্রেক্ষিতে সাধারণ সম্পাদক পদে স্থিতাবস্থার আদেশ কঠোরভাবে পালন করতে জায়েদ খান ও নিপুণ আক্তারকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্টের আপিল বিভাগ।

গত ১৪ মার্চ (সোমবার) নিপুণের বিরুদ্ধে আনা আদালত অবমাননার অভিযোগ শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এই আদেশ দেন।

কিন্ত তারপরও গত ১৭ মার্চ শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসেন নিপুণ। সবশেষ শনিবার (২৬ মার্চ) নিপুণের চেয়ারে বসা ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক। ক্যাপশনে কার্যকরী পরিষদের মিটিং বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

ছবিতে শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকেও দেখা যাচ্ছে। তার নেতৃত্বেই আজকের মিটিং হয়েছে, বিভিন্ন সূত্রে এমন খবরই শোনা যাচ্ছে। আইন অমান্য করে মিটিং করার ব্যাপারে জানতে ইলিয়াস কাঞ্চনকে ফোন দেওয়া হলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে জানতে নিপুণ আক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

সূত্রের খবর, শিল্পী সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি ডিপজল, সহ-সভাপতি রুবেলসহ মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে নির্বাচিত অনেক সদস্যই আজকের মিটিংয়ের বিষয়ে জানতেন না।

প্রসঙ্গত, শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে অপেক্ষা বেড়েছে। গত ২ মার্চ জায়েদ খানের পক্ষে রায় দেন হাইকোর্ট। এরপর শপথ নিয়ে চেয়ারে বসেছিলেন জায়েদ খান। তবে গত ৬ মার্চ শুনানি শেষে জায়েদ খানকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেন চেম্বার আদালত। আগামী চার সপ্তাহ এ পদে স্থিতাবস্থা থাকবে বলেও আদেশ দেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের একক বেঞ্চ।

সম্পর্কিত খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর

জনপ্রিয় খবর

Recent Comments