Tuesday, August 16, 2022
spot_img
Homeসারা বাংলাবিভিন্ন জেলায় সড়কে ঝরল ৭ প্রাণ

বিভিন্ন জেলায় সড়কে ঝরল ৭ প্রাণ

অনলাইন ডেস্কঃ সড়ক দুর্ঘটনায় দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রাণহানি হয়েছে সাতজনের। নিহতদের মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী, সেনাসদস্য, প্রবাসী, ব্যবসায়ী রয়েছেন। শুক্রবার দিবাগত রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত এই দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

ফেনী প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলার ফতেহপুর রেলওয়ে এলাকার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এবং সোনাগাজী উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের মদিনা বাজার এলাকায় পৃথক মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এক প্রবাসী ও এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর প্রাণ গেছে। আহত হন আরও একজন।

শুক্রবার রাতে পৃথক এ দুর্ঘটনায় মৃতরা হলেন- সদর উপজেলার পাঁচগাছিয়া ইউনিয়নের ভবগানপুর গ্রামের আবদুল জলিলের ছেলে সৌদি প্রবাসী জয়নাল আবেদীন (৪৭) এবং সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের চরখোয়াজ গ্রামের একরামুল হকের ছেলে ও সোনাগাজীর আল-হেলাল একাডেমির এসএসসি পরীক্ষার্থী জাহেদ হোসেন ফয়সাল (১৬)। আহত কাজী মাহবুব হাসাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মহিপাল হাইওয়ে থানার ওসি মো. আবদুস সামাদ জানান, মোটরসাইকেলে করে ফেনী শহরে যাওয়ার পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাসের আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে জয়নাল ও মাহবুব ছিটকে পড়েন।

তিনি বলেন, তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা জয়নালকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ক্ষতিগ্রস্ত মোটরসাইকেলটি উদ্ধার আর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এদিকে সোনাগাজীতে ইফতারের দাওয়াত থেকে বাড়ি ফেরার পথে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী জাহেদের মৃত্যু হয়। জাহেদের বন্ধুরা চরচান্দিয়া ইউনিয়নের পূর্ববড়ধলী গ্রামে ইফতার পার্টির আয়োজন করে। সেখান থেকে সন্ধ্যায় বন্ধুর মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফেরার পথে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় ফয়সাল।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি খালেদ হোসেন জানান, স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফয়সালের মৃত্যু হয়।

এদিকে রাজধানীর খিলগাঁও উড়াল সেতু সড়কে তেলবাহী লরির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ফুলতলা বাজারের দুই ব্যবসায়ীর মৃত্যু ঘটেছে। নিহতরা হলেন ফুলতলা বাজারের ভাই ভাই অটো ডোর এন্ড ফার্নিচারস এর স্বত্বাধিকারী ও আ. সালামের পুত্র এনতারুজ্জামান (৪৩) এবং ফুলতলা গাড়াখালা গ্রামের অশ্বিনী বিশ্বাসের পুত্র ব্যবসায়ী বিধান বিশ্বাস।

খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফারুকুল আলম জানান, দুর্ঘটনা কবলিত লরিটি জব্দ এবং লাশ দুটি মর্গে রাখা হয়েছে। নিহত বাদলের স্ত্রী ও দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। ব্যবসায়িক কাজ শেষে ঈদের কেনাকাটা করে অপর ব্যবসায়ী বিধানকে নিয়ে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, সরাইলে বেপরোয়া গতির যাত্রীবাহি বাস সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা মোটরসাইকেলকে চাপা দেওয়ায় আরমান মিয়া (৩২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। শনিবার দুপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কুট্টাপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আরমান নরসিংদী জেলার বেলাব উপজেলার আলফাজ উদ্দিনের ছেলে।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুখেন্দু বসু জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাউতুলীগামী দিগন্ত পরিবহণের একটি লোকাল বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কে পাশে খাদে পড়ে যায়। এসময় সড়কের পাশে মোটরসাইকেল নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা এক যুবক বাসের চাপায় নিহত হয়। মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে মর্গে পাঠানোর হয়েছে।

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে সিএনজি-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে গণি বেপারী (৫৫) নামে এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুরে গফরগাঁও টু ভালুকা সড়কের হাটুরিয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা সূত্রে জানা যায়, মোটরসাইকেল চালিয়ে হাটুরিয়া এলাকার ফিলিংস্টেশনে যাচ্ছিলেন গণি বেপারী। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজির সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে সে মাথায় ও শরীরে আঘাত পেয়ে আহত হয়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফারুক আহম্মেদ বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, শনিবার সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের মাজড়া নামক স্থানে প্রাইভেটকারের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে সেনা সদস্য ইমরান হোসেন (২০) নিহত হন। তিনি যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার দারাজহাট গ্রামের মানিক মোল্লার ছেলে।

পুলিশ জানায়, সৈনিক ইমরান হোসেন ঢাকা থেকে ঈদের ছুটিতে মটরসাইকেলে করে গ্রামের বাড়ি যশোরে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার মাজড়া নামক স্থানে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেট কারের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ওই সৈনিক গুরুতর আহত হন।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় প্রাইভেট কারের চালক পালিয়ে গেলেও মোটরসাইকেল ও ঘাতক প্রাইভেটকার আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চর সোনাকুড় শসান ব্রিজির কাছে মালবাহী একটি ট্রলি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পরে যায়। এসময় ট্রলি চালক রোমান মোল্যা নিহত হয়। তিনি চর সোনাকুড় এলাকায় কামাল মোল্যার ছেলে।

সম্পর্কিত খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর

জনপ্রিয় খবর

Recent Comments