29.5 C
New York
শনিবার, মে ২৫, ২০২৪
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বড়শিতে ধরা পড়লো বড় চিতল

নিউজ রাজশাহী ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে মাছ শিকারের বড়শি। তাতে ধরা পড়েছে বড় আকারের একটি চিতল মাছ। সেই মাছ বড়শি থেকে ছাড়াচ্ছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা। পরক্ষণে মাছ হাতে দুই বোনের উচ্ছ্বাস।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল ফেসবুকে পেজে শেয়ার করা তিনটি ছবিতে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।

ছবি তিনটি প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে তোলা। দলের ফেসবুক পেজে শেয়ার করা ছবিগুলোর সঙ্গে একটি ক্যাপশনও দেওয়া হয়েছে।

তাতে লেখা হয়েছে, ‘রাষ্ট্রীয় ও দলীয় কাজের শত ব্যস্ততার মধ্যেও মাসের কোনো একটি ছুটির দিন যেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের জন্য অনেক আনন্দের। বিশেষ করে ছোট বোন শেখ রেহানা থাকলে তো কথাই নেই! দুই বোন ছিপ নিয়ে বসে যান মাছ ধরতে। মাঝে মাঝে বড়সড় মাছও ধরা পড়ে তাদের বড়শিতে। বাঙালি মানেই মাছে-ভাতে বেড়ে ওঠা এক জাতি। শুভকামনা বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যার জন্য।’

এদিকে, ২০ মিনিটে আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল ফেসবুকে দেওয়া পোস্টে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার মানুষ রিয়্যাক্ট করেছেন। মন্তব্যও করেছেন তিন শতাধিক ফেসবুক ব্যবহারকারী। আর পোস্টটি শেয়ার হয়েছে সাড়ে তিনশোর বেশি।

মহিউদ্দিন অনি নামে একজন মন্তব্যের ঘরে লিখেছেন, ‘সাধারণে অসাধারণ বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। বিশ্বের অন্যতম সেরা প্রধানমন্ত্রী তিনি। ধন্য মোরা, আপনাকে পেয়ে আমরা ধন্য।’

মুস্তাফিজ নামে আরেকজন মন্তব্য করেছে, ‘মাছে-ভাতে বাঙালির গর্বের প্রতীক, বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া আমানত, বাঙালির দুর্দিনের সারথি শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা আপা।’

মোহাম্মদ ওয়ালিদ বিন ওয়াদুদ মন্তব্য করেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভালো মাছ শিকারি। প্রায়ই মাছ শিকার করেন তিনি।’

মাহিনুর ইসলাম মাহিন লেখেন, ‘তিনি আছেন বলেই আজ দেশটা এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমাদের দেশের কিছু স্বার্থপর নেতাকর্মীদের জন্য এত ভালো কাজ করেও তাকে গালমন্দ শুনতে হচ্ছে।’

এর আগেও ছুটির দিনে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মাছ শিকার করতে দেখা গেছে। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ছুটির দিনে তিনি মাছ ধরতে পছন্দ করেন।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
আজকের রাজশাহী
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

বিনোদন

- Advertisment -spot_img

বিশেষ প্রতিবেদন

error: Content is protected !!

Discover more from News Rajshahi 24

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading