11.1 C
New York
রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে শ্রীলঙ্কার সমর্থন চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

নিউজ রাজশাহী ডেস্কঃ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের তাদের পৈতৃকভূমিতে টেকসই, নিরাপদ এবং স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনের জন্য শ্রীলঙ্কার সমর্থন চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গতকাল (শুক্রবার) শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলী সাবরি প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার সময় তিনি এই সমর্থন চেয়েছেন।

আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক সহযোগিতা নিয়ে আলোচনার সময় শেখ হাসিনা উল্লেখ করেন যে, মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দীর্ঘায়িত উপস্থিতি বাংলাদেশ এবং সমগ্র অঞ্চলের সামগ্রিক আর্থ-সামাজিক-অর্থনীতি, পরিবেশ এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থার মারাত্মক হুমকি সৃষ্টি করেছে।

ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) ২২তম মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নিতে বাংলাদেশ সফর করছেন আলি সাবরি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি শ্রীলঙ্কার সৌভাগ্য এবং দ্রুত অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার কামনা করেন।

শেখ হাসিনা কোভিড-১৯ মহামারি এবং আঞ্চলিক অর্থনীতিতে এর প্রভাব নিয়েও আলোচনা করেন।

শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্বের প্রশংসা করেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও স্থিতিশীলতার প্রশংসা করেন।

আলী সাবরি বাণিজ্য সম্পর্ক জোরদার করতে এবং জনগণের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে দুই দেশের মধ্যে শিপিং এবং বিমান যোগাযোগের ওপর জোর দেন। তিনি উল্লেখ করেন, শ্রীলঙ্কানরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। তিনি বাংলাদেশ থেকে বিনিয়োগ করার জন্যও আমন্ত্রণ জানান।

শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার সরকারের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পারস্পরিক সুবিধাজনক সময়ে কলম্বো সফরের আমন্ত্রণ জানান।

এ সাক্ষাতকালে সামনের দিনগুলোতে দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতা অব্যাহত রাখার অঙ্গীকারের সাথে ইতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করা হয়।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
আজকের রাজশাহী
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

বিনোদন

- Advertisment -spot_img

বিশেষ প্রতিবেদন

Discover more from News Rajshahi 24

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading