Sunday, February 5, 2023

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের যোগ্যতা একমাত্র শেখ হাসিনার আছে: শেখ পরশ

নিউজ রাজশাহী ডেস্কঃ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারে এই যোগ্যতা একমাত্র শুধু শেখ হাসিনার আছে। বিএনপির দেশ পরিচালনার কোন যোগ্যতা নেই। বিএনপিকে এই যোগ্যতা প্রমাণ করতে হলে দূর্নীতি, নৈরাজ্য, মানুষ হত্যা দূর করতে হবে। তারা দেশকে ধ্বংস করতে চাই বলে আবারও ক্ষমতায় আসতে ষড়যন্ত্র করছে।

শনিবার (২১ জানুয়ারী) বেলা ১১ টার দিকে আগামী ২৯ জানুয়ারী রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা উপলক্ষে রাজশাহী বিভাগীয় যুবলীগের বর্ধিত সভায় সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা গুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, ক্ষমতায় বিদেশি প্রভূদের কাছে গিয়ে লাভ হবে না। ক্ষমতায় আসতে হলে আগে জনগণের কাছে মাফ চান, নাকে ক্ষত দিয়ে আসেন।

আপনারা এক সময় ৬৩ জেলায় প্রেস ক্লাবে ও বিচারালয়ে বোমা মেরেছিলেন। সাংবাদিক ও বিচারালয়কে ভয় পান বলে বোমা মেরে ছিলেন। অথচ এই দুইটা জিনিস রাষ্ট্রের অন্যতম স্তম্ভ।

শেখ হাসিনা বিনামূল্যে বই ও আশ্রয়নের দিয়েছেন এটাই উন্নয়ন। এক সময় আপনারা বাংলা ভাই তৈরী করেছিলেন। জনগণের অধিকার হরণ করে বলে আপনাদের এই অবস্থা। আপনারা জনগণকে ভয়পান। ৷ বঙ্গবন্ধু ডাকে না একজন মেজরের ডাকে নাকি দেশ স্বাধীন হয়েছে এটা বাদ দেন।

আগামীদিনে যুবলীগের নেতাকর্মীদের রাজপথে থাকতে হবে এটাই যুবলীগের ঠিকানা। তাদের নৈরাজ্য আমরা ঠেকিয়ে দিতে চায়। শেখ হাসিনা থাকলে জনগণের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর আমাদের প্রাণ শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের সকল অর্জন শেখ হাসিনার হাতে হয়েছে।

যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশ আরো বলেন, আপনারা ইনশাআল্লাহ জনসভায় শরীর হয়ে ঐতিহাসিক জনসভায় পরিণত করতে হবে। সেই জনসভা থেকে জানান দিতে চাই বিএনপি-জামায়াতের সকল ষড়যন্ত্র গুড়িয়ে দিবো। পরে তিনি জনসভার অংশ গ্রহণের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, যারা নতুন করে হাওয়া ভবন, খোয়াব ভবন তৈরী করতে চাই তাদেরকে এই যুবলীগ প্রতিহত করবে। বিএনপি-জামায়াতের স্বপ্ন পূরণ হতে দিবে না। সেই বার্তা নিয়ে শেখ হাসিনা আসবেন। সেদিনের আগমন রাজশাহীর সকল জায়গা জনসমুদ্রে হবে তা আর নতুন করে বলতে হবে না।

তিনি আরো বলেন, শেখ ফজলুল হক মনি যুবলীগকে শক্তিশালী করেছিলো। তাকে হত্যা করেছিলো। মনির সুযোগ্য সন্তান পরশকে ও নিখিলকে শেখ হাসিনা দায়িত্ব দিয়েছেন। রাজশাহীতে যুবলীগের যত ইউনিট আছে তাদেরকে মাঠে, গ্রামে, নগর-বন্দরে গিয়ে জনমত গঠন করে হাসিনার বর্ণিল আগমনে ভরে দিতে হবে।

ওমুকের পক্ষ থেকে লাল গোলাপ শুভেচ্ছা এই বলে আর হবে না, ১৪ বছর আরামে ঘুমিয়েছি দেশের পতাকা নষ্ট করতে যড়যন্ত্র করতে নেমেছে তাদের এটা বাস্তবায়ন করতে দেওয়া হবে না।

আব্দুর রহমান বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আরো বলেন, আগামীদিনের ক্ষমতা বদলের মালিক হবেন এদেশের জনগণ। ওরা যড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। ওদের বলতে চাই এই দেশের সংবিধান বর্হিরভূত কোন নির্বাচন হবে না। আগামী নির্বাচম হবে নির্বাচন। সেই নির্বাচনের সরকার প্রধান থাকবেন শেখ হাসিনা। নতুন করে আগুন জ্বালাতে , যানবাহন পোড়াতে চান এবার যুবলীগ তা ভেঙে দিবে। আগামী নির্বাচনে অতদন্ত্র প্রহরী হয়ে কাজ করতে হবে। আগামীতে রাজশাহীর ৬ টি আসনেই আওয়ামী লীগকে জনগণ ম্যানডেট দিবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য ও রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন তার বক্তব্যে বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকতে ও বিরোধী দলে থাকতে রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে এসেছেন। তবে এবারের আগমন বেশী আনন্দ ও উচ্ছ্বাস দেখা যাচ্ছে। এর কারণ বাংলাদেশ বহু উন্নয়ন করেছে।

তিনি আরো বলেন, যশোর দিনে নির্বাচনী যাত্রা শুরু হয়েছে। আগামী ২৯ জানুয়ারী মাদ্রাসা মাঠে আসছেন শেখ হাসিনা। আশাকরি মাদ্রাসা মাঠ যুবলীগের কর্মীরা একাই পরিপূর্ণ করে দিতে পারে ইনশাআল্লাহ।

রাজশাহীকে বিএনপি এক সময় বলতো বিএনপির ঘাটি। এক সময় ছিলেও তা। এখন বিএনপি তাদের আর ঘাটি বলতে পারে না। বিএনপি ১০ ডিসেম্বর ঢাকা দখল করতে চেয়েছিলো সেই মাদ্রাসা মাঠে ড্রোন ক্যামেয়ার দেখেছি ১০-১২ হাজার লোকের আগমন হয়েছে। আমরা ৭-১০ লক্ষ জনগণের সমাগম দেখিয়ে দেখিয়ে দিবো। শেখ হাসিনার এসে নির্দেশনা দিবেন সেই নির্দেশনায় নির্বাচন পর্যন্ত আমরা চলবো। সব সময় আমরা সচেতন থাকবো। আমরা আমাদের দেশকে আরো বহুদূর নিয়ে যেতে চাই।

যুবলীগের বিভাগীয় বর্ধিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম কামাল হোসেন, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলসহ কেন্দ্রীয় যুবলীগ, বিভাগীয় ও জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

রাজশাহী বিভাগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -

সর্বাধিক জনপ্রিয়