25.7 C
New York
শনিবার, মে ২৫, ২০২৪
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

মোহনপুরে এমপিকে অতিথি না করায় বিনোদন পার্কে হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিনকে অতিথি না করায় মিরাকল ওয়াটার কিংডম নামের একটি বিনোদন পার্কে ব্যাপক ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

রোববার (১৪মে) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত তাণ্ডব চালায় একদল যুবক। যাদের অনেকের হাতে বিভিন্ন ধরণের অস্ত্র ছিল। তারা নিজেদের এমপি আয়েনের অনুসারী বলে দাবি করে এ তান্ডব চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে বিনোদন পার্কটির কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

জানা গেছে, রাজশাহী মহানগরীর শিরোইল এলাকার বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফুল মোহাম্মদের ছেলে মাহফুজ রিফাতসহ কয়েকজন মিলে মোহনপুর উপজেলার খয়রা মোড় এলাকায় ১৫ বিঘা জমির ওপর নতুন একটি বিনোদন পার্ক গড়ে তোলেন। সাজসজ্জ্বা শেষে কয়েকদিন আগে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে পার্কটি উদ্বোধনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে রাজশাহী সিটি মেয়র ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের উপস্থিত থাকার কথা বলা হয়। তবে নির্ধারিত ১৩ মে তারিখে রাসিক মেয়র লিটন নিজের নির্বাচনী কর্মসূচিতে ব্যস্ত থাকায় সেখানে যেতে পারেন নি। পরে যেয়ে পার্কটি উদ্বোধন করবেন বলে উদ্যোক্তাদের জানান। ফলে পার্কটির উদ্বোধন কয়েকদিন পিছিয়ে দেওয়া হয়।

পার্কের তত্ত্বাবধায়ক ও ইনচার্জ কামাল হোসেন জানান, রোববার বেলা সোয়া ১১টা থেকে সাড়ে ১১টার মধ্যে ১৫-১৬টি মোটরসাইকেল যোগে ৩০-৩৫ জনের একটি সশস্ত্র দল পার্কে আসে। তাদের কয়েকজনের হাতে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো ছুরি এবং লাঠিও ছিল। কোন কিছু না বলেই পার্কে জোরপূর্বক প্রবেশ করে কেয়ারটেকার ও ইনচার্জসহ পার্কের কর্মচারিদের মারধর শুরু করেন তারা।

এক পর্যায়ে তারা বলতে থাকেন আমাদের এমপিকে বাদ দিয়ে তোর বাপকে (লিটন) প্রধান অতিথি করেছিলি। সে তো আসে নাই। এখন তোদের কারা রক্ষা করবে।

পরে পার্কের বিভিন্ন আসবাবপত্রসহ গোটা পার্কজুড়ে তারা ভাংচুর চালায়। প্রায় ৩০ মিনিট সন্ত্রাসী কায়দায় তাণ্ডব চালিয়ে যুবকরা মোটরসাইকেল যোগে স্থান ত্যাগ করেন।

পার্কের উদ্যোক্তা মাহফুজ রিফাত জানান, ঘটনার সময় মোহনপুর থানা পুলিশকে ফোন করে সাহায্য চাওয়া হয়। সন্ত্রাসীরা চলে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর মোহনপুর থানার ওসি সেলিম বাদশা ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে যান। তবে ওই সময় কোন সন্ত্রাসী যুবককে আটক করতে পারেননি

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন জানান, কে বা কারা এই ধরণের কর্মকাণ্ড তাদেরকে তিনি চেনেন না। কেউ তার কাছে অভিযোগও করেন নি।

মোহনপুর থানার ওসি সেলিম বাদশা বলেন, তিনি ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন। কিন্ত তখন সেখানে কেউ ছিল না। সন্ধ্যা পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ করেন নি। অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
আজকের রাজশাহী
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

বিনোদন

- Advertisment -spot_img

বিশেষ প্রতিবেদন

error: Content is protected !!

Discover more from News Rajshahi 24

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading