20.2 C
New York
বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

‘আমার গ্রাম, আমার শহর’ স্লোগানকে ধারণ করে রাসিকের আয়তন বৃদ্ধিসহ উন্নয়ন করতে চাই’

সারোয়ার জাহান বিপ্লব: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এবং আসন্ন ২১ জুন রাসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, পবা উপজেলার প্রায় অধিকাংশ এলাকা সহ নগরীর সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকাকে সিটি কর্পোরেশনের আওতায় অর্ন্তভুক্ত করে আয়তন বৃদ্ধির প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে আগামীতে নগরীর আয়তন বৃদ্ধি করা হবে। আপনারা যদি চান তাহলে আপনার এলাকায় প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন করতে চাই।

আপনারা বিবেচনা করেন, তিন হাজার কোটি টাকা দিয়ে আপনাদের উন্নয়ন কত দ্রুত, কত সুন্দরভাবে করা যেতে পারে। প্রশস্ত রাস্তা হবে, ড্রেন হবে, মশা নিবারণ হবে, আলো ঝলমলে দৃষ্টিনন্দন বাতি হবে, পার্ক হবে, নতুন নতুন মসজিদ হবে, স্কুল হবে-এসব কিছু কি আপনারা চান না? নিশ্চয় চান, এসব পাওয়া আপনাদের অধিকার।

মাননীয় প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের নির্বাচনে বলেছিলেন ‘আমার গ্রাম, আমার শহর।’ এটি স্লোগান ছিল। সেই স্লোগানকে ধারণ করে পুরো এলাকাকে উন্নত করতে চাই। এটি বলতে পারেন আপনাদের প্রতি আমার পিতার যে ঋণ, সেই ঋণটা আমি আমার জীবনে কাজ করে পরিশোধ করতে চাই।

শনিবার ২৭ মে বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে সাড়ে ৬টা পর্যন্ত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ অডিটোরিয়ামে রাজশাহী জেলার পবা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের আয়োজনে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫ বছর ক্ষমতায় থেকে দেশকে যে জায়গায় নিয়ে গেছেন, তা দেখবার জন্য কি দূরবীন লাগে? সেটা দেখবার জন্য কি কোন বিশেষজ্ঞের দরকার হয়? একদম গ্রামের যে কৃষক, একজন দিনমুজুর সেও পর্যন্ত খোঁজ রাখে দেশের কোথায় কী হচ্ছে। কারণ হাতে থাকা মোবাইলে সব কিছু দেখতে পাওয়া যায়, সব খবর টেলিভিশনে আসে, পত্রিকায় আসে। তাই মানুষকে বোকা বানিয়ে রাখা সম্ভব নয়। দেশের উন্নয়ন দেখে যারা হিংসা করে, কারণ তারা তো দেখছে সবই করে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা। নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ হচ্ছে। পদ্মাসেতু হয়েছে, আট লেন, ছয় লেনের সড়ক হয়েছে। রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ হচ্ছে, গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ হচ্ছে।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াছিন আলী। স্বাগত ও সভাপতির বক্তব্যে বীর মুক্তযোদ্ধা ইয়াছির আলী বলেন, আমরা পবা উপজেলা বাসি খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে আছি। আমাদের সকল আত্মীয়-স্বজনকে খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে কাজ করার জন্য আহ্বান জানাই।

সভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বেগম আখতার জাহান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসানুল হক পিন্টু, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মর্জিনা পারভীন,পবা উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি নারিফা বেগম, রাজশাহী জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি অধ্যাপিকা নার্গিস আরা শেলী, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজী ইয়াসিন আলী প্রমুখ।

মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শরিফুল ইসলাম, জেলা ওলামা লীগের সভাপতি আয়নুল ইসলাম ফারুকী, দর্শন পাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুল ইসলাম রাজ, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হাসান আহমেদ জুয়েল, প্রচারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান, সাবেক সহ-দপ্তর সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিব মোহাম্মদ পলাশ, সাবেক দপ্তর সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি গোলাম মোস্তফা ,হরিয়ান ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জেবর আলী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সঞ্চালনা করেন পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন। সভায় সকল বক্তারা আসন্ন ২১ জুন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে থাকার ও কাজ করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
আজকের রাজশাহী
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

বিনোদন

- Advertisment -spot_img

বিশেষ প্রতিবেদন

error: Content is protected !!

Discover more from News Rajshahi 24

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading