4.4 C
New York
মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪
spot_img

রাজশাহী-৩ আসন থেকে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত এমপি আয়েনের

এবার নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের টানা দুইবারের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন। রোববার রিটানিং কর্মকর্তার কাছে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের আবেদন জমা দিবেন তিনি।

শনিবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০২৩ ইং তারিখ রাতে আয়েন উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করবেন না। তাই তার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছি। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। এখন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। আমি দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে যেতে পারি না। কি করে নৌকার বাইরে ভোট চাইবো। নৌকার বাইরে ভোট চাওয়া আমার পক্ষে সম্ভাব নয়। নৌকার বিপক্ষে ভোট করা কষ্টদায়ক এবং যন্ত্রণাদায়ক। তাই প্রার্থীতা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আয়েন উদ্দিন আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে ডেকে নিয়ে গিয়ে দুইবার দলীয় মনোনয়ন দিয়ে এমপি বানিয়েছেন। এতো কম বয়সে এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। এর পর কি করে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে আমি নির্বাচন করতে পারি। মানুষের বিবেক বলেও তো একটা কথা আছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের বাইরে গেলে আমার বিবেকের সঙ্গে বেইমানি করা হবে। যেটা আমি করতে পারি না। হার জিত পরের কথা; আজ দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করলে এই কলঙ্ক মৃত্যু আগ পর্যন্ত বয়ে বেড়াতে হবে।

আয়েন উদ্দিন বলেন, দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে ঢাকা থেকে রাজশাহী ফেরার দিন বিমানবন্দরে প্রচুর নেতাকর্মী জড়ো হন। তারা আমাকে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তাদের শান্তনা দিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার কথা বলেছিলাম। মনোনয়নপত্র জমা দিলেও নির্বাচনের কোন কর্মকান্ড চালায়নি বলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও দুইবারের এই তরুণ এমপি।

রাজশাহী-৩ আসনে প্রথম দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চমক দেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আয়েন উদ্দিন। সে বার দলের মনোনয়ন বঞ্চিত সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লার সঙ্গে প্রতিদ্বন্ধীতা করে বিপুল ভোটে জিতেন তিনি। এর পর ২০১৮ সালের নির্বাচনে দ্বিতীয় বার দলীয় মনোনয়ন পেয়ে বিএনপির প্রার্থী এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলনকে বিপুল ভোটে পরাজিত করেন আয়েন উদ্দিন।

এ আসনে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। তিনি এবার প্রথম দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, দলীয় সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রার্থীতা প্রত্যহার করে আয়েন উদ্দিন একজন রাজনৈতিক নেতার মতই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কারণ তার বয়স কম। তার ভবিষ্যৎ রয়েছে। আমি আশা করে দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে ১৮ ডিসেম্বর থেকে তিনি নৌকা প্রতীকের পক্ষে প্রচার প্রচারণাও চালাবেন।

এর আগে গত ৭ ডিসেম্বর রিটানিং অফিসারের কাছে আবেদন করে নিজের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেন ডা. মনসুর রহমান এমপি। তিনি এবার দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। তার আসনে এবার দলীয় মনোনয়ন পান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দুইবারের সাবেক এমপি আবদুল ওয়াদুদ দারা

spot_imgspot_img
রাজশাহী বিভাগ

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক জনপ্রিয়

error: Content is protected !!